মিথ্যা খবর ছড়ানোর ভয়াবহতা আমরা তথ্যপ্রযুক্তির যুগে বাস করছি, প্রতিনিয়ত আমাদের হাতের মুঠোয় এসে পৌঁছাচ্ছে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের খবরা-খবর। কিন্তু দুঃখজনক বিষয় হলো বর্তমান সময়ে দুই ধরনের খবর সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় হয়ে থাকে যথাঃ- ১. বানোয়াট খবর ২. মানুষের ব্যয়াপারে গুজব মানুষের ঈমানের ফায়দা নিয়ে অনেকেই বানোয়াট কথা সমাজে ছড়িয়ে থাকেন। কোন রকমের হাদিস ও কোরআনের দলিলসহ রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম থেকে শুরু করে বিভিন্ন সাহাবীদের নামের সরানো হচ্ছে বানোয়াট কথা। কথার শেষে আবার যোগ করে দেয়া হচ্ছে যে ভিত্তিহীন খবর ১০ জনকে পৌঁছে দেবে তার জন্য জাহান্নামের আগুন হারাম হয়ে যাবে। এই ধরনের ভিত্তিহীন কথা যোগ করে মানুষকে নানা ধরনের বানোয়াট খবর ছড়িয়ে দিতে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে।

আমরা তথ্যপ্রযুক্তির যুগে বাস করছি, প্রতিনিয়ত আমাদের হাতের মুঠোয় এসে পৌঁছাচ্ছে বিশ্বের বিভিন্ন…
আমরা তথ্যপ্রযুক্তির যুগে বাস করছি, প্রতিনিয়ত আমাদের হাতের মুঠোয় এসে পৌঁছাচ্ছে বিশ্বের বিভিন্ন…

মিথ্যা খবর ছড়ানোর ভয়াবহতা

আমরা তথ্যপ্রযুক্তির যুগে বাস করছি, প্রতিনিয়ত আমাদের হাতের মুঠোয় এসে পৌঁছাচ্ছে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের খবরা-খবর। কিন্তু দুঃখজনক বিষয় হলো বর্তমান সময়ে দুই ধরনের খবর সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় হয়ে থাকে যথাঃ-

১. বানোয়াট খবর
২. মানুষের ব্যয়াপারে গুজব

মানুষের ঈমানের ফায়দা নিয়ে অনেকেই বানোয়াট কথা সমাজে ছড়িয়ে থাকেন। কোন রকমের হাদিস ও কোরআনের দলিলসহ রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম থেকে শুরু করে বিভিন্ন সাহাবীদের নামের সরানো হচ্ছে বানোয়াট কথা। কথার শেষে আবার যোগ করে দেয়া হচ্ছে যে ভিত্তিহীন খবর ১০ জনকে পৌঁছে দেবে তার জন্য জাহান্নামের আগুন হারাম হয়ে যাবে। এই ধরনের ভিত্তিহীন কথা যোগ করে মানুষকে নানা ধরনের বানোয়াট খবর ছড়িয়ে দিতে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে।

সর্ম্পুণ পড়ুন👇

http://bit.ly/3obe5vh

ইসলামীক কনটেন্ট পেতে ক্লিক করুন

https://bit.ly/islamic-lic

--

--

জিকির | আজকে থেকে জিকির করুন আল্লাহ তা'আলা বলেন "ফাজকুরুনি আজকুর কুম" আমাকে স্মরণ করো আমি তোমাদের স্মরণ করবো। জিকির আল্লাহকে স্মরণ করা এর সবচেয়ে চমৎকার বিষয় হলো এটাই আপনি একেবারে নিশ্চিত হতে পারবেন যে যেই মুহুর্তে আপনি করছেন সেই মুহুর্তে আল্লাহ তায়ালাও আপনার কথা স্মরণ করছেন। আপনার প্রতি সন্তুষ্ট হচ্ছেন। প্রতিদিন কোনএক নির্জন ইস্তানে বসে হাতে দশ পনেরো মিনিট সময় নিয়ে জিকির করতে পারলে আমাদের জীবন পাল্টে যাবে। আমরা অনেক সময় বলি আল্লাহর কাছ থেকে নিজেকে দূরে মনে হয় বা মনের মধ্যে এক ধরনের অশান্তি বিরাজ করছে। আমি প্রতিদিন জিকির করুণ আপনার অন্তরকে আলোকিত করে তুলবে। মুসলিম শরীফের হাদীসে বর্ণিত আছে আল্লাহ তা'য়ালা বলেন যখন আমার বান্দা আমার জিজ্ঞেস করে তখন আমি তার সঙ্গে থাকি।

আল্লাহ তা'আলা বলেন "ফাজকুরুনি আজকুর কুম" আমাকে স্মরণ করো আমি তোমাদের স্মরণ করবো। জিকির আল্লাহকে…
আল্লাহ তা'আলা বলেন "ফাজকুরুনি আজকুর কুম" আমাকে স্মরণ করো আমি তোমাদের স্মরণ করবো। জিকির আল্লাহকে…

জিকির | আজকে থেকে জিকির করুন

আল্লাহ তা'আলা বলেন "ফাজকুরুনি আজকুর কুম" আমাকে স্মরণ করো আমি তোমাদের স্মরণ করবো। জিকির আল্লাহকে স্মরণ করা এর সবচেয়ে চমৎকার বিষয় হলো এটাই আপনি একেবারে নিশ্চিত হতে পারবেন যে যেই মুহুর্তে আপনি করছেন সেই মুহুর্তে আল্লাহ তায়ালাও আপনার কথা স্মরণ করছেন। আপনার প্রতি সন্তুষ্ট হচ্ছেন।

প্রতিদিন কোনএক নির্জন ইস্তানে বসে হাতে দশ পনেরো মিনিট সময় নিয়ে জিকির করতে পারলে আমাদের জীবন পাল্টে যাবে। আমরা অনেক সময় বলি আল্লাহর কাছ থেকে নিজেকে দূরে মনে হয় বা মনের মধ্যে এক ধরনের অশান্তি বিরাজ করছে। আমি প্রতিদিন জিকির করুণ আপনার অন্তরকে আলোকিত করে তুলবে। মুসলিম শরীফের হাদীসে বর্ণিত আছে আল্লাহ তা'য়ালা বলেন যখন আমার বান্দা আমার জিজ্ঞেস করে তখন আমি তার সঙ্গে থাকি।

সর্ম্পুণ পড়ুন👇

http://bit.ly/3uAcQIs

ইসলামীক কনটেন্ট পেতে ক্লিক করুন

https://bit.ly/islamic-lic

--

--

বছরের শ্রেষ্ঠ ১০ দিন - বছরের শ্রেষ্ঠ দিন কোনটি? আল্লাহ তায়ালা মানুষকে সৃষ্টি করেছেন এবং নিবার্চিত কিছু ব্যক্তিকে তিনি বিশেষ ভাবে সম্মনিত করেছেন। তাঁরা হচ্ছেন নবী-রাসূল গণ এবং সেই নিবার্চিত ব্যক্তিদের মধ্যে উচ্চতর মর্যদা সব চেয়ে সম্মনিত একজন ব্যক্তিকে তিনি হচ্ছেন হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)। আল্লাহ তায়ালা এই পৃথিবীকে সৃষ্টি করেছেন এবং নিবার্চিত কিছু স্থানকে তিনি বিশেষ ভাবে সম্মনিত করেছেন। সেই গুলো স্থান হচ্ছে মসজিদ। সেই নিবার্চিত স্থান গুলোর মধ্যে উচ্চতর মর্যদা দিয়েছেন সবচেয়ে সম্মনিত ৩টি স্থানকে সে গুলো হচ্ছেঃ-

আল্লাহ তায়ালা মানুষকে সৃষ্টি করেছেন এবং নিবার্চিত কিছু ব্যক্তিকে তিনি বিশেষ ভাবে সম্মনিত করেছেন।…
আল্লাহ তায়ালা মানুষকে সৃষ্টি করেছেন এবং নিবার্চিত কিছু ব্যক্তিকে তিনি বিশেষ ভাবে সম্মনিত করেছেন।…

বছরের শ্রেষ্ঠ ১০ দিন - বছরের শ্রেষ্ঠ দিন কোনটি?

আল্লাহ তায়ালা মানুষকে সৃষ্টি করেছেন এবং নিবার্চিত কিছু ব্যক্তিকে তিনি বিশেষ ভাবে সম্মনিত করেছেন। তাঁরা হচ্ছেন নবী-রাসূল গণ এবং সেই নিবার্চিত ব্যক্তিদের মধ্যে উচ্চতর মর্যদা সব চেয়ে সম্মনিত একজন ব্যক্তিকে তিনি হচ্ছেন হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)। আল্লাহ তায়ালা এই পৃথিবীকে সৃষ্টি করেছেন এবং নিবার্চিত কিছু স্থানকে তিনি বিশেষ ভাবে সম্মনিত করেছেন। সেই গুলো স্থান হচ্ছে মসজিদ। সেই নিবার্চিত স্থান গুলোর মধ্যে উচ্চতর মর্যদা দিয়েছেন সবচেয়ে সম্মনিত ৩টি স্থানকে সে গুলো হচ্ছেঃ-

১. মাসজিদুল হারাম
২. মাসজিদে নাবাওয়ি
৩. মাসজিদ আল আক্সা

তেমনি ভাবে আল্লাহ তায়ালা সময়কে সৃষ্টি করেছেন এবং নিবার্চিত কিছু সময়কে তিনি বিশেষ ভাবে সম্মনিত করেছেন। যেমন জুম্মার দিন,রমজান ইত্যাদি বছরের এই দিন গুলোর মধ্যে তিনি উচ্চতর মর্যদা দিয়েছেন কয়েকটি বিশেষ দিন এবং রাতকে রাতের দিক থেকে নিসন্দেহে বছরের ১০টি মর্যদাবান রাত হচ্ছে রমজান মাসের শেষ ১০টি রাত।

সর্ম্পুণ পড়ুন👇

http://bit.ly/2RvHFiX

ইসলামীক কনটেন্ট পেতে ক্লিক করুন

https://bit.ly/islamic-lic

--

--

লাইলাতুল ক্বদর - লাইলাতুল ক্বদরে ইবাদত করার উপায় লাইলাতুল ক্বদর বা শবে ক্বদর একটি রাত যা হাজার মাসের চেয়ে উত্তম। কোন রাত সেটি বোখারী ও মুসলীমের হাদিসে বর্ণিত রাসূল (সাঃ) বলেছেন, রমজানের শেষ ১০ দিনে এই রাতটি খুজতে। শেষ ১০ রাতে লাইলাতুল ক্বদরকে খুজা মানে কি? মানে শেষ ১০ রাতে প্রতিটি রাতে বেশি বেশি ইবাদত করা। আজ থেকে টিক করে নিন রমজান মাসে শেষ ১০ রাতে কি কি ইবাদত করবেন। কিছু অংশ কোরআন পড়বেন ঠিক করে নিন দিনে কোন সময় টায় কোরআন পড়বেন এবং কতখন কোরআন পড়বেন শুধু তেলাওয়াত করবে নাকি তেলাওয়াতের পাশাপাশি আনুবাদ ও তাফসির পড়বেন। প্রতিদিন কিছু টাকা দান করুন এবং এখনি নিরর্দারণ করে রাখুন কবে,কিভাবে,কাকে সেই টাকা গুলো দান করবেন। একটি খাতে দান না করে আপনার দানটাকে ডাইবারসিফাই করুন বিভিন্ন ভাবে দান করুন রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিকে সাহায্য করা, মসজিদে দান করা, কোন এতিমের সাহায্য করা ইত্যাদি।

লাইলাতুল ক্বদর বা শবে ক্বদর একটি রাত যা হাজার মাসের চেয়ে উত্তম। কোন রাত সেটি বোখারী ও মুসলীমের…
লাইলাতুল ক্বদর বা শবে ক্বদর একটি রাত যা হাজার মাসের চেয়ে উত্তম। কোন রাত সেটি বোখারী ও মুসলীমের…

লাইলাতুল ক্বদর - লাইলাতুল ক্বদরে ইবাদত করার উপায়

লাইলাতুল ক্বদর বা শবে ক্বদর একটি রাত যা হাজার মাসের চেয়ে উত্তম। কোন রাত সেটি বোখারী ও মুসলীমের হাদিসে বর্ণিত রাসূল (সাঃ) বলেছেন, রমজানের শেষ ১০ দিনে এই রাতটি খুজতে। শেষ ১০ রাতে লাইলাতুল ক্বদরকে খুজা মানে কি? মানে শেষ ১০ রাতে প্রতিটি রাতে বেশি বেশি ইবাদত করা। আজ থেকে টিক করে নিন রমজান মাসে শেষ ১০ রাতে কি কি ইবাদত করবেন।

কিছু অংশ কোরআন পড়বেন ঠিক করে নিন দিনে কোন সময় টায় কোরআন পড়বেন এবং কতখন কোরআন পড়বেন শুধু তেলাওয়াত করবে নাকি তেলাওয়াতের পাশাপাশি আনুবাদ ও তাফসির পড়বেন। প্রতিদিন কিছু টাকা দান করুন এবং এখনি নিরর্দারণ করে রাখুন কবে,কিভাবে,কাকে সেই টাকা গুলো দান করবেন। একটি খাতে দান না করে আপনার দানটাকে ডাইবারসিফাই করুন বিভিন্ন ভাবে দান করুন রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিকে সাহায্য করা, মসজিদে দান করা, কোন এতিমের সাহায্য করা ইত্যাদি।

সর্ম্পুণ পড়ুন👇

https://bit.ly/2Rns58E

ইসলামীক কনটেন্ট পেতে ক্লিক করুন

https://bit.ly/islamic-lic

--

--